বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শিরোনাম

আগ্নেয়াস্ত্র কমানোর উদ্যোগ; নিউইয়র্ক সিটিতে সাত দফায় উদ্ধার ৪০০ বন্দুক

রবিবার, অক্টোবর ৯, ২০২২

প্রিন্ট করুন

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্ক সিটিতে বিভিন্ন ধরনের মধ্যে বন্দুক সহিংসতার ঘটনা অন্যতম। গত এক বছরে এখানে হাজার শুটিংয়ের ঘটনা ঘটেছে। বন্দুক সহিংসতার কারণে সিটির মানুষের মধ্যে ভয়, আতঙ্ক ও দুশ্চিন্তা কাজ করছে। তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এ অবস্থায় নিউইয়র্ক সিটি ও স্টেটের মানুষকে নিরাপদে বসবাসের নিশ্চয়তা দেয়ার পাশাপাশি বন্দুক সহিংসতা বন্ধ করতে বিশেষ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে প্রকাশ্যে সব ধরনের অস্ত্র ব্যবহার ও বহন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পাশাপাশি বন্দুক সহিংসতা বন্ধ করতে মাঠপর্যায়ে মানুষের কাছে থাকা অস্ত্র সংগ্রহ করা হচ্ছে। বাইব্যাক প্রক্রিয়া অনুসরণ করে মাঠে থাকা অস্ত্র সংগ্রহ করা হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে গত ২৪ সেপ্টেম্বর ওজন পার্ক এলাকা থেকে ৬২টি বন্দুক সংগ্রহ করা হয়েছে। এ নিয়ে সাত দফায় মোট ৪০০ বন্দুক সংগ্রহ করা হল।

কুইন্সের ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি মেলিন্ডা কার্টজের অফিস থেকে এক বার্তায় জানানো হয়, বাইব্যাক ইভেন্টে ৬২টি বন্দুক রাস্তা থেকে সংগ্রহ করেছে পুলিশ।

নিউইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল লেটিশিয়া জেমস বলেন, ‘জনসাধারণের নিরাপত্তা রক্ষা ও অপরাধের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য রাস্তায় থাকা বন্দুক উদ্ধার অপরিহার্য। সম্ভাব্য ট্র্যাজেডি রোধ করতে ও জীবন বাঁচাতে আমরা যেসব পদক্ষেপ নিচ্ছি, তার মধ্যে একটি হল বন্দুক কিনে নেয়া। আমি ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি কার্টজ ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে এ উদ্যোগে শামিল থাকায় ধন্যবাদ জানাই।’

এসেম্বলি মেম্বার ডেভিড ওয়েপ্রিন বলেন, ‘বন্দুক সহিংসতা মহামারি আকার ধারণ করেছে। তাই রাস্তা থেকে বন্দুক সরানো অপরিহার্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমি ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি মেলিন্ডা কার্টজের বন্দুক বাইব্যাক উদ্যোগের অংশীদার হতে পেরে গর্বিত।’

অ্যাসেম্বলি ওমেন জেনিফার রাজকুমার বলেন, ‘সম্ভাব্য ট্র্যাজেডি এড়ানো ও মানুষের মূল্যবান জীবন রক্ষা করতে আমরা বন্দুক উদ্ধার করছি। নিউইয়র্ক শহরে এ বছর ইতিমধ্যে এক হাজার শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা হয়েছে। এ সংকট মোকাবিলায় আমাদের সব ধরনের পদক্ষেপ নিতে হবে। এ বন্দুক কেনার উদ্যোগ রাস্তায় আগ্নেয়াস্ত্রের সংখ্যা কমিয়ে আনবে বলে আমার বিশ্বাস। এ ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি কার্টজকে ধন্যবাদ।’