সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪

শিরোনাম

উত্তর আয়ারল্যান্ডে শান্তি রক্ষার বিষয়ে একমত বাইডেন ও ট্রাস

বুধবার, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২২

প্রিন্ট করুন

লন্ডন, ইংল্যান্ড: উত্তর আয়ারল্যান্ডে শান্তি রক্ষার গুরুত্বের বিষয়ে একমত হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস। ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যে উভয়ের মধ্যে ফোনে আলাপ হয়। সে সময়ে উভয়ে এ বিষয়ে সম্মত হন।

ডাউনিং স্ট্রিটের একজন নারী মুখপাত্র জানান, ট্রাস ফোনে বাইডেনকে বলেন, ‘গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের নেতা হিসেবে অভিন্ন চ্যালেঞ্জসমূহ মোকাবেলায় ওয়াশিংটনের সাথে নিবিড়ভাবে কাজ করতে তিনি আগ্রহী।’

উভয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর কারণে যে তীব্র র্অথনৈতিক সংকট দেখা দিয়েছে, তা নিয়েও আলোচনা করেন।

ট্রাসের পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিসেবে এক বছরের দায়িত্বপালনকালে উত্তর আয়ারল্যান্ডে বেক্সিটোত্তোর উত্তেজনা এবং ব্রাসেলস, ডাবলিন ও ওয়াশিংটনের সাথে ব্রিটেনের সম্পর্কে চাপ তৈরি হওয়ার প্রেক্ষাপটে উভয়ের আলোচনায় বিষয়গুলো উঠে আসে।

মঙ্গলবারের (৬ সেপ্টেম্বর) ফোনকলে ট্রাস ও বাইডেন উভয়ে ন্যাটো ও এইউকেইউএসের মাধ্যমে প্রতিরক্ষা জোট আরো জোরদারে সম্মত হয়েছেন।

বৈশ্বিক স্বাধীনতা শক্তিশালী করতে এবং এ ক্ষেত্রে স্বৈরশাসকদের ঝুঁকি মোকাবেলাসহ ইউক্রেনে পুতিনের ব্যর্থতা নিশ্চিতে উভয়ে তাদের অঙ্গীকার আরো জোরদার করার কথা বলেন।

হোয়াইট হাউস থেকে বলা হয়েছে, ‘দুই নেতা বেলফাস্ট চুক্তির অভিন্ন অঙ্গীকার নিয়ে আলোচনা করেন। এ ছাড়া উভয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও উত্তর আয়ারল্যান্ড প্রটোকলে আলোচনার মাধ্যমে একটি চুক্তিতে পৌঁছনোর গুরুত্ব নিয়েও আলোচনা করেন।’

তাদের ফোন আলোচনার বিস্তারিত তুলে ধরে হোয়াইট হাউস আরো বলছে, ‘এ দুই নেতা চীনের কারণে তৈরি চ্যলেঞ্জসমূহ মোকাবেলা এবং ইরানকে পরমাণু অস্ত্র তৈরি থেকে বিরত রাখার বিষয়ে আলোচনা করেন।’

ট্রাস ও বাইডেন উভয়ে ব্রিটেন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বিশেষ সম্পর্কের বিষয়টি পুনরায় নিশ্চিত এবং এ সম্পর্ক আরো গভীর করতে তারা প্রস্তুত বলেও উল্লেখ করেন।

উল্লেখ্য, বরিস জনসনের উত্তরসূরী লিজ ট্রাস মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন।