মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪

শিরোনাম

খলিল বিরিয়ানী হাউসের ব্রঙ্কস ও জ্যামাইকা শাখায় থ্যাংকসগিভিং উৎসব

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

নিউইয়র্ক সিটি, যুক্তরাষ্ট্র: নিউইয়র্ক সিটিসহ যুক্তরাষ্ট্রে গেল ২৫ নভেম্বর ঐতিহ্যবাহী থ্যাংকসগিভিং ডে উদযাপিত হয়েছে। প্রতি বছর নভেম্বরের চতুর্থ বৃহস্পতিবার টার্কি ভোজসহ উৎসব আয়োজনে দিবসটি উদযাপন করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রে জাতীয় ছুটির দিন থ্যাংকসগিভিং ডে। এটি এখন বাঙালিদেরও উৎসব। এ দিন ঘরে ঘরে টার্কির রোস্ট ছাড়াও আয়োজন করা হয় ভিন্ন স্বাদের খাবার। প্রতি বছরই থ্যাংকসগিভিং ডে উপলক্ষে বাংলাদেশী কমিউনিটিতে বিভিন্ন উৎসব হয়। এবারো নানা স্থানে হয়েছে থ্যাংকসগিভিং ডে উৎসব। পার্টি ও ঘরোয়াভাবে উদযাপিত হয়েছে দিবসটি।

এ দিন, নিউইয়র্ক সিটির নানা রেস্টুরেন্টে হয়েছে টার্কি উৎসব। খলিল বিরিয়ানী হাউসের ব্রঙ্কস ও জ্যামাইকা শাখায় হয়েছে থ্যাংকসগিভিং উৎসব।

খলিল’স ফুডের স্বত্বাধিকারী শেফ মো. খলিলুর রহমান জানান, তিনি এবার রেকর্ড ২০০টি হালাল টার্কির অর্ডার পেয়েছেন; যা পূর্বেল বছরের প্রায় দ্বিগুণ।

খলিলুর রহমান আরো বলেন, ‘অর্ডার নেয়া গ্রাহকদের সরবরাহ নিশ্চিত করতে তার রেস্টুরেন্টের তিনটি কিচেনেই ২৪ নভেম্বর রাতভর কাজ করেছে কর্মীরা। নির্দিষ্ট সময়ে রেডি করে ২০০টি টার্কি সরবরাহ করতে হিমসিম খেতে হয় তাদের।

খলিলুর রহমান জানান, তারা কোয়ালিটির সঙ্গে কোন অবস্থাতেই আপোষ করেন না। জোর দেন কোয়ালিটি ও স্বাস্থ্য দুই দিকেই। পাইকারী দোকান থেকে ফ্রোজেন টার্কি কিনেন নি। লাইভ পোলিট্রি ফার্ম থেকে উচ্চ দামে দিয়ে টার্কি কিনে হালালভাবে জবাই করে স্বাস্থ্যসম্মতভাবে রান্না করে ক্রেতাদের সরবরাহ করেন। রোস্টে কোন আলাদা রং ব্যবহার করা হয়নি। চাহিদামত প্রতিটি টার্কি ওয়েল ডান কুক করে গ্রহকদের হাতে তুলে দেয়া হয়।

শেফ খলিল বলেন, ‘বাংলাদেশি কমিউনিটিসহ অন্যান্য কমিউনিটির বিপুল সংখ্যক লোক ব্রঙ্কস ও জামাইকার খলিল বিরিয়ানী হাউজে আসেন থ্যাংকসগিভিং উৎসব করতে। ক্রেতাদের মধ্যে দেশী-বিদেশী অনেক চিকিৎসকও রয়েছেন। আমরা নানা প্রতিষ্ঠানেও থ্যাংকস গিভিং টার্কি সরবরাহ করেছি। নিউইয়র্ক সিটিসহ পাশের স্টেট থেকেও অনেকে থ্যাংকস গিভিং টার্কি নিতে এসেছেন। সবাইকে হালাল টার্কি সরবরাহ করতে পেরে আমরা আনন্দিত।