রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪

শিরোনাম

চট্টগ্রামে করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

প্রিন্ট করুন

চট্টগ্রাম: সারা দেশের মত করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বমুখী ধারা চট্টগ্রামেও অব্যাহত রয়েছে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় (বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর) নতুন ২২ জনের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। সংক্রমণ হার ১৪ দশমিক ৭৬ শতাংশ।
চট্টগ্রামের করোনা সংক্রান্ত হালনাগাদ পরিস্থিতি নিয়ে বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রতিবেদনে এ সব তথ্য জানা যায়।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের রিপোর্টে বলা হয়, ‘সিটির আট ল্যাবরেটরি ও এন্টিজেন টেস্টে বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের ১৪৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২২ জন পজিটিভ শনাক্ত হন। এর মধ্যে শহরের ১৩ ও উপজেলার নয় জন। জেলায় করোনাভাইরাসে মোট শনাক্ত ব্যক্তির সংখ্যা এখন এক লাখ ২৮ হাজার ৯২৯ জন। এর মধ্যে শহরের ৯৪ হাজার ও গ্রামের ৩৪ হাজার ৯২৯ জন। উপজেলায় আক্রান্তদের মধ্যে হাটহাজারীতে পাঁচজন, মিরসরাইয়ে দুই জন এবং আনোয়ারা ও রাউজানে একজন করে রয়েছেন। করোনায় মৃতের সংখ্যা এক হাজার ৩৬৭ জনই রয়েছে। এতে শহরের ৭৩৭ ও গ্রামের ৬৩০ জন।

ল্যাবভিত্তিক রিপোর্টে দেখা যায়, বেসরকারি ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরি শেভরনে ৩৩ জনের নমুনার মধ্যে শহরের চারজন আক্রান্ত শনাক্ত হন। ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ২৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় শহরের চার ও গ্রামের দুইজন জীবাণুবাহক পাওয়া যায়। আন্দরকিল্লা জেনারেল হাসপাতালের আরটিআরএলে শহর ও গ্রামের দুইটি নমুনা পরীক্ষা করা হলে দুইটারই পজিটিভ রেজাল্ট আসে। এপিক হেলথ কেয়ারে ১৯টি নমুনায় শহরের তিনটিতে সংক্রমণ ধরা পড়ে। মেট্রোপলিটন হাসপাতাল ল্যাবে ১৫ জনের নমুনায় শহরের একজনের দেহে জীবাণুর অস্তিত্ব মিলে। এ ছাড়া মেডিকেল সেন্টার হাসপাতাল ল্যাবে তিন, এশিয়ান স্পেশালাইজড হাসপাতালে ১৩ ও এভারকেয়ার হসপিটাল ল্যাবে পাঁচ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলে সবগুলারই রেজাল্ট নেগেটিভ আসে।

নমুনা সংগ্রহের বিভিন্ন কেন্দ্রে ৩০ জনের এন্টিজেন টেস্ট করা হয়। এতে গ্রামের ছযজন সংক্রমিত বলে জানানো হয়।

ল্যাবভিত্তিক রিপোর্ট বিশ্লেষণে সংক্রমণ হার নির্ণিত হয়, শেভরনে ১২ দশমিক ১২ শতাংশ, ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ২০ দশমিক ৬৯, আরটিআরএলে শতভাগ, এপিক হেলথ কেয়ারে ১৫ দশমিক ৭৯, মেট্রোপলিটন হাসপাতালে ছয় দশমিক ৬৬, মেডিকেল সেন্টার হাসপাতাল, এশিয়ান সেপশালাইজড হাসপাতাল ও এভারকেয়ার হসপিটাল ল্যাবে শুন্য শতাংশ ও এন্টিজেন টেস্টে তিন দশমিক ৩৩ শতাংশ।