সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪

শিরোনাম

জাহাজভাঙা শিল্পে শ্রমিক নিরাপত্তার উদ্যোগ ভাল লেগেছে পিটার হাসের

বুধবার, এপ্রিল ২৪, ২০২৪

প্রিন্ট করুন

চট্টগ্রাম: বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুন্ড উপজেলায় জাহাজ ভাঙা শিল্প এবং সেবরকারি সংস্থা ইপসার কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে বলেছেন, ‘দীর্ঘ দিন ধরে জাহাজভাঙ্গা শিল্প পরিদর্শনের অপেক্ষায় ছিলাম, অবশেষ এলাম। এখানে জানতে পারি, চারটি শিপইয়ার্ড গ্রিন শিপ ইয়ার্ডের সনদ পেয়েছে। আমি আশা করব, হংকং কনভেনশনের আলোকে সবগুলো শিপ রিসাইক্লিং ইয়ার্ড নিজেদের গ্রিন শিপ রিসাইক্লিং ইয়ার্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠা করবে। শিপ ইয়ার্ডে পরিবেশ সুরক্ষা এবং শ্রমিক নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে মালিকপক্ষের বিভিন্ন উদ্যোগ ও প্রচেষ্টা দেখে আমার ভাল লেগেছে।’

মঙ্গলবার (২৩এপ্রিল) সীতাকুণ্ডে অবস্থিত দেশের একমাত্র জাহাজভাঙা শিল্পসহ এনজিও সংস্থা ইপসার বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে স্টেকহোল্ডারদের নিয়ে আয়োজিত মত বিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

পিটার ডি হাস আরো বলেন, ‘ইপসায় আসার পূর্বে আমি জাহাজ পুনঃপ্রক্রিয়াজাত শিল্প পরিদর্শন করেছি। শিপ রিসাইক্লিং সেক্টরের জন্য ইপসার নিরাপত্তা সচেতনতা ও প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের জন্য আমি ইপসাকে সাধুবাদ জানাই।’

এ দিন, সকালে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত সীতাকুন্ডে অবস্থিত উন্নয়ন সংস্থা ইপসার সেইফটি ফার্স্ট সেন্টার পরিদর্শন করেন। এ সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের পাবলিক রিলেশন অফিসার স্টিফেন ইভেলি, ইনফরমেশন অফিসার আশা বে এবং প্রেস ও মিডিয়া কোঅর্ডিনেটর তারিকুল ইসলাম নাহিন। ইপসার সেইফটি ফার্স্ট সেন্টার পরিদর্শনকালে রাষ্ট্রদূতকে স্বাগত জানান ইপসার প্রধান নির্বাহী মো. আরিফুর রহমান, কোঅর্ডিনেটর মো. আলী শাহীন। রাষ্ট্রদূত ইপসার সেইফটি ফার্স্ট সেন্টার ও প্রশিক্ষণ কাযর্ক্রম পরিদর্শন শেষে বিভিন্ন স্টেকহোল্ডারদের নিয়ে আয়োজিত মত বিনিময় সভায় অংশ নেন।

এ সময় মো. আরিফুর রহমান রাষ্ট্রদূতকে ইপসার বিভিন্ন সমাজ উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের ব্যাপারে অবহিত করার পাশাপাশি শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডের চলমান ও শ্রমিকদের নিরাপত্তার জন্য দক্ষতা উন্নয়ন ব্যাপারে ব্যাখ্যা করেন।

মো. আলী শাহীনের সঞ্চালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন সীতাকুন্ড সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এবিএম নায়হানুল বারী, ওসি তদন্ত মো. সোলাইমান।