বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

জ্বালানি তেলের বদলে বিদ্যুৎচালিত যাত্রীবাহী প্লেন উড়ল যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

প্রিন্ট করুন

ওয়াশিংটন, যুক্তরাষ্ট্র: জ্বালানি তেলের পরিবর্তে পুরোপুরি বিদ্যুৎচালিত যাত্রীবাহী বিমান উড়ল যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনের আকাশে। বিমানটির নাম অ্যালিস, দেশটির স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে ওয়াশিংটনের গ্র্যান্ট কাউন্টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আট মিনিটের সংক্ষিপ্ত যাত্রা করে এ বিমানটি। যদিও উদ্বোধনী যাত্রায় কোন যাত্রী ছিলেন না। খবর সিএনএনের।

অ্যাভিয়েশন এয়ারক্রাফট নামে ইসরায়েলের একটি বিমান সংস্থা এটি তৈরি করেছে। প্রথম উড়ানোর সময় সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে সাড়ে তিন হাজার ফুট ওপরে ওঠেছিল এটি। সংস্থাটির প্রেসিডেন্ট গ্রেগরি ডেভিস এ উড়ানোকে ‘ঐতিহাসিক’ আখ্যা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘৫০ দশকের পর এ প্রথম বিমানে পুরোপুরি নতুন প্রযুক্তি ব্যবহৃত হল।’

সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিদ্যুৎচালিত গাড়ি বা মোবাইল ফোনের মতই মাত্র আধা ঘণ্টায় চার্জ দেয়া যাবে এ বিমানটিতে। নয়জন যাত্রীকে নিয়ে সেটি এক ঘণ্টা আকাশে উড়তে পারবে। গতি হবে ঘণ্টাপ্রতি প্রায় ৪৪০ নটিক্যাল মাইল। প্রতি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২৫০ নটস বা ২৮৭ মাইল গতিবেগে যেতে পারে অ্যালিস।

মঙ্গলবারের (২৭ সেপ্টেম্বর) প্রথম উড়ালের পর এ সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করে পর্যালোচনা করবে অ্যাভিয়েশন।

২০১৫ সালের এ সংস্থাটির আশা ছিল, আর মাত্র কয়েক বছরের মধ্যে সেটি যাত্রী পরিবহনে সক্ষম করে তুলতে পারবে তারা। সব কিছু পরিকল্পনা অনুযায়ী চললে ২০২৭ সালের মধ্যেই এ বিমানটি যাত্রীদের নিয়ে যাতায়াত করতে পারবে বলে মনে করছে অ্যাভিয়েশন।

বিমান সংস্থাটি জানিয়েছে, যাত্রীবাহী বিলাসবহুল (এক্সিকিউটিভ) ও মালবাহী বিমান আপাতত অ্যালিসের এ তিনটি সংস্করণ পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর্যায়ে রয়েছে।

যাত্রীবাহী বিমানে নয়জন যাত্রীসহ দুইজন পাইলট বসতে পারবেন। এক্সিকিউটিভ বিমানে হাত-পা ছড়িয়ে ছয়জন যাত্রীর জায়গা হবে। অন্য দিকে, মালবাহী অ্যালিসে আয়তনের ৪৫০ ঘনফুট জায়গায় মালপত্র রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।