মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪

শিরোনাম

ঢাকায় ‘১৯তম এশীয় চারুকলা প্রদর্শনী’ শুরু বৃহস্পতিবার

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২২

প্রিন্ট করুন

ঢাকা: আগামী বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) থেকে বাংলাদেশসহ ১১৪টি দেশের অংশগ্রহণে শুরু হচ্ছে ‘১৯তম এশীয় চারুকলা প্রদর্শনী-২০২২’। মাসব্যাপী এ প্রদর্শনী ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি এ প্রদর্শনীর আয়োজন করছে। একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি এ প্রদর্শনী উদ্বোধন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা সেমিনার কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহা পরিচালক লিয়াকত আলী লাকী উৎসবের বিস্তারিত তুলে ধরেন।

সভায় তিনি জানান, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের পৃষ্টপোষকতায় এবার বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১১৩টি দেশের মোট ৪৬৫ জন শিল্পী ৭১২টি শিল্পকর্ম নিয়ে অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশের ১৪৯ জন শিল্পী তাদের ১৫৬ টি শিল্পকর্ম নিয়ে অংশ নিবেন।

একাডেমির জাতীয় চিত্রশালায় অনুষ্ঠিতব্য প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, তুরস্ক, যুক্তরাজ্য ও পোল্যান্ডের পাঁচজন জুরি উপস্থিত থেকে তাদের মতামত দিবেন। অংশগ্রহণকারী শিল্পীদের মধ্য থেকে জুরিদের মূল্যায়নের ভিত্তিতে তিনটি গ্রান্ড পুরস্কার ও ছয়টি সম্মানসূচক পুরস্কার দেয়া হবে। গ্রান্ড পুরস্কারের ক্ষেত্রে প্রত্যেক বিজয়ীকে পাঁচ লাখ টাকা, ক্রেষ্ট ও সনদপত্র দেয়া হবে। সম্মানসূচক পুরস্কার বিজয়ীরা প্রত্যেকে তিন লাখ টাকা, ক্রেষ্ট ও সনদপত্র পাবেন।

সংবাদ সম্মেলনে একাডেমির সচিব সালাহউদ্দিন আহম্মদ, পরিচালক সৈয়দা মাহবুবা করিম উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি এশিয়ান আর্ট বিয়েনাল আয়োজন করে আসছে। ১৯৯৫ সালে সপ্তম এশিয়ান বিয়েনালে প্রথম পারফরমেন্স প্রদর্শিত হয় জাপানের শিল্পী শো কাজাকুরা’র অংশগ্রহণের মাধ্যমে। বর্তমান বাংলাদেশের বিভিন্ন শিল্প আয়োজন বা প্রদর্শনীতে পারফরমেন্স অন্যতম শিল্পভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। প্রতিষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীতে এ মাধ্যমটিকে অন্তর্ভুক্ত করার ফলে, এ মাধ্যমের প্রতি শিল্পীরা উৎসাহিত হচ্ছে ও প্রসারিত হচ্ছে এ শিল্পধারা। বিগত কয়েকটি প্রদর্শনীর মত ১৯তম দ্বিবার্ষিক এশীয় চারুকলা প্রদর্শনীতেও পারফরমেন্স আর্টের সক্রিয় সম্পৃক্ততা থাকবে।