সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক হবে দশ লেন!

মঙ্গলবার, এপ্রিল ২, ২০২৪

প্রিন্ট করুন

কুমিল্লা: ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক দশ লেনে উন্নীত হবে। এতে ১২ লেনের সুবিধা পাওয়া যাবে। মহাসড়কের কাজ এরমধ্যে শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) দুপুরে কুমিল্লা জেলার প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ঈদ যাত্রা ও সড়ক নিরাপত্তা ব্যাপারে গণশুনানি ও মত বিনিময় সভায় এসব কথা বলেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী।

কুমিল্লা জেলার প্রশাসক খন্দকার মো মুশফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় মহাসড়কে নিরাপদ ঈদ যাত্রার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোকপাত করা হয়। ঈদ যাত্রা যানজট মুক্ত, নিরাপদ ও দুর্ঘটনা মুক্ত রাখতে সব প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানান সচিব।

সভায় এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী বলেছে, ‘ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম এক্সপ্রেসওয়ের পরিকল্পনা করা হয়েছে। এতে করে ঢাকা থেকে সরাসরি চট্টগ্রামে যাওয়া যাবে। এ জন্য ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দশ লেনে উন্নীত করা হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পি-টোকেন ও অবৈধভাবে জিবি আদায় করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঈদের পাঁচ দিন আগে থেকেই ফিটনেসবিহীন গাড়ি মহাসড়কে উঠলেই আটক করে পাঠিয়ে দেয়া হবে ডাম্পিং স্টেশনে। যেখানে ফিটনেসবিহীন গাড়িটি আটক হবে, সেখানেই যাত্রীদের নামিয়ে দেয়া হবে। যাত্রীদের এ ভোগান্তির জন্য পরিবহন মালিককে জরিমানা করা হবে। তিন চাকার গাড়ি সড়কে উঠলে জরিমানা করা হবে।’

ঈদ প্রস্তুতি নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, ‘ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে পরিবারের সাথে ঈদ উদযাপন করতে আমরা বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছি। এ রুটের ভাড়া কমানো হয়েছে, বাড়তি ভাড়া নিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ২৪ ঘন্টা সিএনজি স্টেশন খোলা থাকবে।’

সভায় জানানো হয়, আগামী ৪ এপ্রিল থেকে ঈদ পরবর্তী তিন দিন পর্যন্ত মহাসড়কে সব প্রকার নির্মাণ ও সংস্কার কাজ বন্ধ থাকবে। খাদ্য ও ওষুধবাহী ট্রাক ছাড়া পণ্যবাহী যানবাহন বন্ধ থাকবে। প্রশাসন, পুলিশ ও সড়ক বিভাগের কর্মকর্তারাসহ অন্যরা মহাসড়ক সচল রাখতে কাজ করবে। বাজারগুলোতে যানজট মুক্ত রাখতে টিম কাজ করবে, দুর্ঘটনায় উদ্ধারে ক্রেনসহ যাত্রী চালকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিয়ে কাজ করা হবে।

সভায় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী সৈয়দ মাইনুল হাসান, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আবু হেনা মো. তারেক ইকবাল, বিআরটিসির পরিচালক অনুপম সাহাসহ সরকারের বিভিন্ন বিভাগ ও দফতরে কর্মকর্তা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।