শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

শিরোনাম

দোঁহা এক প্রাচীন কাব্য সাহিত্যের ধারা

শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২২

প্রিন্ট করুন

ঢাকা: কবি ইউসুফ মুহম্মদের সাড়া জাগানো দোঁহা-কাব্য গ্রন্থ ‘নেহাই’ এর পাঠ প্রতিক্রিয়া ও আবৃত্তি শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সেমিনার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেছেন কথাশিল্পী আবুল কাসেম।

অনুষ্ঠানে কেএম খালিদ বলেন, ‘দোঁহা এক প্রাচীন কাব্য সাহিত্যের ধারা। মধ্যযুগের চর্যাপদের কবিরা এ ধারার কাব্য সাহিত্য রচনা করে বিশ্ব সাহিত্যের ভাণ্ডরকে সমৃদ্ধ করেছেন। আবুল কাসেম দোঁহা সংক্রান্ত যে প্রবন্ধ উপস্থাপন করলেন, তা আমার জানার পরিধিকে সমৃদ্ধ করেছে। সাহিত্যের জগতে যারা আছেন, তারা অবশ্যই এর আঙ্গিক সম্পর্কে বিভিন্ন ধরনের গবেষণা করছেন। তবে বর্তমান সময়ে দোঁহাকারের সংখ্যা নগন্য হলেও কবি ইউসুফ মুহম্মদ যে দোঁহা সাহিত্যকর্ম করেছেন, তার জন্য আমি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এবং তরুণ কবিরা দোঁহা সাহিত্যে বিচরণে আগ্রহ পাবে তার এ সুজন কর্মে।’

মুহম্মদ নূরুল হুদা বলেন, ‘দোঁহা আসলে কবিতা। প্রাচীন ও মধ্যযুগে গান হিসেবে গাওয়া হত। কবি ইউসুফ যে ধারনা করে যাচ্ছে, তা বাংলা সাহিত্যের ভাণ্ডারকে সমৃদ্ধ করবে।’

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন আয়োজক প্রতিষ্ঠান জহির রায়হান ফিল্ম ইন্সটিটিউটের সাধারণ সম্পাদক, চলচ্চিত্র নির্মাতা প্রদীপ ঘোষ। আলোচনা করেন কবি আসাদ মান্নান, মিনার মনসুর ও সৈকত হাবিব।

পাঠপ্রতিক্রিয়া জানান এএসএম কামাল উদ্দিন। আয়োজনে সভাপতিত্ব করেন কবি শাহ মোহাম্মদ সানাউল হক। কবি ইউসুফ মুহম্মদের দোঁহা গ্রন্থ থেকে দোঁহা পাঠ করেন আবৃত্তিশিল্পী দেওয়ান সাঈদুল হাসান, পারভেজ চৌধুরী ও ফারহানা তৃনা।