বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক ঊর্ধ্বগতিতে সাধারণ মানুষ চরম অসহায়

রবিবার, আগস্ট ১৪, ২০২২

প্রিন্ট করুন

চট্টগ্রাম: দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক ঊর্ধ্বগতিতে সাধারণ মানুষ চরম অসহায় উল্লেখ করে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহবায়ক শাহাদাত হোসেন বলেছেন, ‘জালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধির সাথে সাথে আজ সবকিছুই দ্বিগুণ থেকে তিন গুণে উঠেছে। সবকিছুর পরিবহন মূল্য দ্বিগুণ বৃদ্ধি করেছে। সরকারের কোন নিয়ন্ত্রণ নেই। চাল, ডাল ও তেলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য এবং মাছ -মাংস সবকিছুর দাম আজ চরম ঊর্ধ্বগতি। মানুষ অসহায় অবস্থায় জীবন যাপন করছে। এ সরকার দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংসের ধার প্রান্তে নিয়ে গেছে। এ সরকারকে অবিলম্বে পদত্যাগ করার আহবান জানাচ্ছি। দেশের জনগণ কেঁপে উঠেছে। জনগণ তাদের অধিকার আদায়ের রাজপথে নেমে আসবে। আন্দোলনের মাধ্যমে এ সরকারকে পদত্যাগেকে বাধ্য করা হবে।’

রোববার (১৪ আগস্ট) ৩১ নম্বর আলকরণ ওয়ার্ডের ‘এ’ ইউনিটের সম্মেলনে প্রথম অধিবেশনে তিনি এসব কথা বলেন।

এতে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শাহাদাত হোসেন আরো বলেন, ‘দেশে এখন চুরি, ডাকাতি বেড়ে গেছে। মানুষ অসহায় অবস্থায় দিন যাপন করছে। আইন-শৃঙ্খলার চরম অবনতি ঘটছে। গতকাল এটিএম বুথের টাকা উঠাতে গিয়ে ছিনতাই কারীর হাতে মৃত্যু হয়েছে। সন্ত্রাসীদের চাঁদাবাজি নগরবাসী অতিষ্ঠ।’

শাহাদাত হোসেন বলেন, ‘বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে পুনর্গঠন কমিটির নেতাদের নিয়ে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে তৃণমূল পর্যায়ের ইউনিট সম্মেলন শুরু হয়েছে। আগামী এক মাসের মধ্যে পুনর্গঠন কমিটির নেতাদেরকে দায়িত্বপ্রাপ্ত থানাগুলোর সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডে সম্মেলনের মাধ্যমে নিরপেক্ষভাবে প্রতিটি ইউনিট কমিটিগুলো সম্পন্ন করতে হবে।’

প্রধান বক্তার বক্তব্য চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাসেম বক্কর বলেন, ‘এ সরকার দেশ চালাতে সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ হয়েছে। এ সরকার জনগণের অর্থ লুটপাট করে মেগা প্রকল্প নামে মেগা দুর্নীতি করেছে। এ সরকারের উচিত অবিলম্বে পদত্যাগ জনগণের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করা উচিত। অন্যথায় এ সরকারকে চরম মূল্য দিতে হবে। ৩১ নম্বর আলকরণ ওয়ার্ডেরর ‘এ’ ইউনিটের সম্মেলন সম্পূর্ণ করেছি। সম্মেলনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।’

দ্বিতীয় অধিবেশনে কোতোয়ালী- বাকলিয়া-চকবাজার পুনর্গঠন কমিটির টিম প্রধান এমএ আজিজের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক ও পুনর্গঠন টিমের সদস্য মোহাম্মদ আব্দুল হালিম শাহ আলম, পুনর্গঠন কমিটির সদস্য আব্দুস সাত্তার সেলিম, মনোয়ারা বেগম মানি, কোতোয়ালি থানা বিএনপির সভাপতি মনজুর রহমান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, নগর বিএনপি নেতা ওয়াহিদুল আলম, আব্দুল বাতেন, ইদ্রিস।

উপস্থিত ছিলেন কোতোয়ালী থানা বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন, মোহাম্মদ সাইফুল, ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জসিম মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হাসান লিটু, বিএনপি নেতা মোহাম্মদ রিয়াদ, মোহাম্মদ দিদারুল আলম, সলিমুল্লা টিপু, নূরনবী চাঁদ, আবুল কালাম, আব্দুর রাজ্জাক, আনোয়ার হোসেন, মোহাম্মদ বাবুল, মোহাম্মদ মিজান, একারাম, মো. বেলাল, মো. কাশেম।

এ সময় এমএ আজিজ বলেন, ‘যারা আজকে নির্বাচিত হয়েছেন, তারা সকলেই সম্মেলনে তৃণমূলের ভোটের মাধ্যমে মাধ্যমে নির্বাচিত হয়েছে। আমরা অতি দ্রুত সময়ে সম্মেলনের মাধ্যমে সব ইউনিট কমিটিগুলো সম্পন্ন করব।’

তিনি ৩১ নম্বর আলকরণ ওয়ার্ডের ‘এ’ ইউনিটের সম্মেলনে আব্দুল মান্নানকে সভাপতি, আবদু শুকুরকে সাধারণ সম্পাদক ও মো. আনোয়ারকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ২১ জনের ইউনিট কমিটি ঘোষণা করেন।