রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪

শিরোনাম

নিউইয়র্কে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউএসএর ঈদে মিলাদুন্নবী কনভেনশন অনুষ্ঠিত

রবিবার, অক্টোবর ৮, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র: নিউইয়র্কে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউএসএ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.) কনভেনশন ২০২৩ সম্পন্ন হয়েছে। জ্যামাইকার আল আকসা পার্টি হলে গেল ২২ সেপ্টেবর মাগরিব থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত এ কনভেনশন অনুষ্ঠিত হয়। পর্দা সহকারে মহিলারাসহ বিপুল সংখ্যক ধর্মপ্রাণ মুসলমান এতে অংশ নেন।

কনভেনশনে কীনোট স্পীকার ছিলেন আন্তর্জাতিক ইসলামিক স্কলার শায়েখ আল্লামা মুহাম্মদ সাইফুল আজম বাবর আল আজহারী। আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউএসএর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মাওলানা সৈয়দ জুবায়ের আহমদের সভাপতিত্বে এবং কেএম হাসনাতের পরিচালনায় কনভেনশনে স্বাগত বক্তব্য দেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউএসএর মহাসচিব মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন ফুলতলী ইসলামিক সেন্টারের ইমাম মাওলানা সাইয়্যেদ সাজিদুল হক, মসজিদ আল নুরের ডাইরেক্টর আল্লামা ক্বারী গোলাম রাসুল।

অতিথি ছিলেন মোহাম্মদ শরীফ মহিউদ্দিন এমডি, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউএসএ’র প্রেসিডিয়াম মেম্বার মাওলানা শাহান শাহ এহিয়া। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সংগঠনের সহ সভাপতি মুহাম্মদ ইকবাল হোসেইন, মাওলানা আতাউর রহমান ও যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা সৈয়দ মুইনুল হক।

কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউএসএ ব্রুকলীন শাখার সভাপতি মাওলানা শফিউল আলম কুরাইশি আল কাদরী, নর্থ ব্রঙ্কস ইসলামিক সেন্টার অ্যান্ড জামে মসজিদের ইমাম হাফিজ মোসাদ্দিক আহমেদ। না’ত শরিফ পরিবেশন করেন খায়রুল বশার, ওমর ফারুক, এসকান্দর মিয়া, ওসমান গনি তালুকদার ও তালহা।

মুনির আহমেদ, সৈয়দ রাহুল ইসলাম, মো. মাহবুব হোসেন, শাহ জাকারিয়া, মো. আসলাম হাবীব, আরিফ চৌধুরী, মুরাদুল আলম চৌধুরী, সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া, আব্দুল মোসাব্বির, শাকির রহমান, জে মোল্লা সানী, সৈয়দ ইসহাক আলী, মো. আলী রাজা, মো. শাহ আলম, শাহআলম, ওসমান গনি তালুকদার, মো. জাফর আহমেদ, কবির আহমেদ, আবুল হোসেন, আব্দুল হামিদ, মো. জাকারিয়া, শাহ আহমেদ, আবু তাহের, আলী নূর, মুরাদ হোসেন, মোহাম্মদ ইয়াহিয়া, নবী হোসেনসহ বিভিন্ন রাজ্য থেকে বিপুল সংখ্যক নবী প্রেমী আশেকানরা কনভেনশনে যোগ দেন।

শায়েখ আল্লামা মুহাম্মদ সাইফুল আজম বাবর আল আজহারী ঈদে মিলাদুন্নবীর (দ.) গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে বলেন, ‘আল্লাহ নবী মুহাম্মাদকে (সা.) বিশ্ববাসীর জন্যে রহমত হিসেবে পাঠান। তিনি ছিলেন শান্তি, নিরাপত্তা ও কল্যাণের মূর্ত প্রতীক ‘রাহমাতুল্লিল আলামিন’। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে পরম বন্ধুরূপে অন্যায় ও অসাম্যকে তিরোহিত করে সাম্য ও ন্যায়নীতি প্রতিষ্ঠাই ছিল তার মহান ব্রত। মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) ধর্মকে মানব জাতির কল্যাণে প্রয়োগ করতে শিখিয়েছেন। রাসূলে কারীম (দ.) ইবাদত-বন্দেগি, আকীদা-বিশ্বাস, আচার-ব্যবহার, আদব-আখলাক, স্বভাব-চরিত্র সব বিষয়ে আদর্শ। আর তা ঘোষণা করেছেন স্বয়ং আল্লাহ। তার আদর্শের অনুসরণে নিজের কর্ম ও জীবনকে গড়ে তোলা আল্লাহর আদেশ।

অন্যান্য বক্তারা বলেন, ‘পৃথিবীতে হযরত মোহাম্মদের (দ.) আবির্ভাব উপলক্ষেই ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা যথাযোগ্য মর্যাদায় প্রতি বছর ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.) উদযাপন করে থাকেন। জীবনের সব ক্ষেত্রে মহানবীর আদর্শ বাস্তবায়নই মুক্তির পথ, প্রিয় নবী মুহাম্মাদকে (সা.) আন্তরিক ভালবাসাই হল ঈমান পরিপূর্ণ হওয়ার অন্যতম শর্ত।’

বিশেষ মুনাজাত ও তবারক বিতরণের মাধ্যমে শেষ হয় আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত ইউএসএ’র ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.) কনভেনশন। দেশ, জাতির কল্যাণ কামনাসহ বিশ্ব শান্তির জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়। পরে, তবারুক বিতরণ করা হয়।