সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

শিরোনাম

পররাষ্ট্রসহ সাত মন্ত্রীর অপসারণ দাবি নতুনধারার

বুধবার, আগস্ট ২৪, ২০২২

প্রিন্ট করুন

ঢাকা: দেশের ভাবমূর্তি-অর্থনীতি-দায়িত্ব পালনে গাফলতি ও দুর্নীতির অপরাধে পররাষ্ট্রসহ সাত মন্ত্রীর অপসারণ দাবি করেছে নতুনধারা বাংলাদেশ (এনডিবি)।

সোমবার (২২ আগস্ট) সকালে মতিঝিলস্থ হোটেল থ্রী স্টারে এনডিবির ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখা পূর্ণগঠন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ দাবি জানানো হয়।

সভায় এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেন, ‘উন্নয়নের নামে আমাদের অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দিচ্ছে বর্তমান সরকারের একটি বড় অংশ। এরা অর্থ পাচার করছে, ছাত্র-যুব-জনতাকে পথে বসিয়েছে, এরা দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করছে, এদের অপরাধে-দুর্নীতিতে অতিষ্ট মানুষরা থানা হাজতে আত্মহত্যা করছে; এমন পরিস্থিতিতে পররাষ্ট্র, খাদ্য, বাণিজ্য, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী, এলজিআরডি, পরিকল্পনা ও বিদ্যুৎ-জ্বালানি প্রতিমন্ত্রীকে অনতিবিলম্বে অপসারণ করা হবে- শেখ হাসিনার সরকারের অন্যতম বুদ্ধিমান কাজ। কারণ, এ সাত মন্ত্রী তাদের স্ব স্ব মন্ত্রণালয়ে তো অবশ্যই, তাদের নির্বাচনী এলাকাতেও দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছেন। তাদের ব্যর্থতার কারণে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি-বিদ্যুৎ-তেল-গ্যাস সংকট, অর্থনৈতিক মন্দা, সারা দেশে অব্যবস্থাপনা, আইন-শৃঙ্খলার চরম অবনতি হয়েছে।’

প্রেসিডিয়াম মেম্বার রাশেদা চৌধুরীর সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য দেন প্রেসিডিয়াম মেম্বার ফজলুল হক, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রী, জাতীয় ধর্মধারার আহবায়ক কবি মানিক চক্রবর্তী, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এনডিবির যুগ্ম আহবায়ক রুবেল আকন্দ, হাবিবুল্লাহ খান।

সভায় দলের নেতারা আরো বলেন, ‘নতুন প্রজন্মের প্রতিটি প্রতিনিধি মন্ত্রী-সাংসদ-সচিব-আমলাদের অপরাধ-দুর্নীতি দেখতে দেখতে ক্লান্ত। তারা রাষ্ট্রের প্রতিটি স্তরে নীতি-আদর্শ-সততা দেখতে চায়; আর এ জন্য নীতিবান নেতৃত্বর পাশাপাশি সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের মধ্যেও প্রকৃত দেশপ্রেমের প্রমাণ চায়। যা না থাকায় আজ জাতি অর্থনৈতিক-রাজনৈতিক-সামাজিক-শিক্ষা-সাহিত্য-সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয়ভাবে দেউলিয়া হতে বসেছে।’