বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শিরোনাম

প্রতারণার দায়ে গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত টমি মিয়া দশ হাজার ডলারের বিনিয়োগকারী খুঁজছেন নিউইয়র্কে!

শুক্রবার, নভেম্বর ১১, ২০২২

প্রিন্ট করুন

ডেস্ক রিপোর্ট: প্রতারণার মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা ভুক্ত ব্রিটিশ বাংলাদেশি রন্ধনশিল্পী টমি মিয়া এবার নিউইয়র্কে দশ হাজার ডলারের বিনিয়োগকারী খুঁজে বেড়াচ্ছেন। তবে দশ হাজার ডলারের মত স্বল্প পুঁজির বিনিয়োগকারী খোঁজার বিষয়টিকে টমি মিয়ার নতুন প্রতারণার জাল বলছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

জানা যায়, গত ৬ নভেম্বর ওয়ার্ল্ড ফেয়ার মেরিনায় ব্রিটিশ শেফ টমি মিয়াকে নিয়ে একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল অব ফুড এন্ড কালচার নামের এ অনুষ্ঠান আয়োজন করেন জামাইকা ফ্রেন্ড সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আল আমিন রাসেল। অনুষ্ঠানের নাম বাংলাদেশ ফুড এন্ড কালচার হলেও এতে মূলত টমি মিয়ার রেসিপিই প্রদর্শন করা হয়। এছাড়া গত ৭ নভেম্বর টমি মিয়াকে নিয়ে খলিল ফুডসের উদ্যোগে মিট এন্ড গ্রিড অনুষ্ঠিত হয় ব্রঙ্কসের গোল্ডেন প্যালেসে।

অনুষ্ঠানে টমি মিয়া জানান, তিনি জায়গা ও বিনিয়োগকারী খুঁজছেন। এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি দশ হাজার ডলারের বিনিয়োগকারী খুঁজছেন বলে জানিয়েছেন। আর এটি নিয়েই প্রবাসীদের মাঝে নানা ধরনের প্রশ্নের উদ্রেক হয়েছে।

প্রবাসী বাংলাদেশিরা জানান, দশ হাজার ডলার তেমন কোন মামুলি বিষয় নয়। এর পেছনে টমি মিয়ার নতুন কোন প্রতারণার কৌশল থাকতে পারে।

এর আগে চলতি বছরের ২৭ জুন প্রতারণার অভিযোগে টমি মিয়া’স হসপিটালিটি ম্য্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউটের চেয়ারম্যান টমি মিয়া ও প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা করেন একই প্রতিষ্ঠানের সাবেক মার্কেটিং উপদেষ্টা এসএম আলী জাকের।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, আলী জাকের ২০২১ সালের ২৯ ডিসেম্বর টমি মিয়া’স হসপিটালিটি ম্য্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউটে চুক্তিভিত্তিক মার্কেটিং উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ লাভ করেন। ২০২২ এর ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ এপ্রিল- এ চার মাস কাজও করেন। তবে চুক্তি অনুযায়ী চার লাখ ২৮ হাজার টাকা পাওনা হলেও আসামিরা কোন টাকা পরিশোধ করেন নি।

মামলার অভিযোগ মতে, গত ২৯ মার্চ বাদী টাকা চাইলে আসামিরা তার প্রাণনাশের হুমকি দেন। সে দিনই তিনি ঢাকার বনানী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এজাহারে আরো বলা হয়, ‘টাকা চেয়ে গত ১ জুন আসামিদের লিগ্যাল নোটিশ পাঠান আলী জাকের।’

মামলার বাদী আলী জাকের গণ মাধ্যমকে বলেন, গত ৫ জুন এ নোটিশ গ্রহণ করার পর তাজুল ইসলাম বাদীকে প্রতিশ্রুতি দেন, এক সপ্তাহের মধ্যে টাকা পরিশোধের। কিন্তু তারা তা করেন নি।’

টাকা পরিশোধের কথা বলে বনানীতে টমি মিয়ার অফিসে ডেকে নিয়ে তাজুল ইসলাম বেশ কিছু ব্যক্তির উপস্থিতিতে বাদীকে হুমকি-ধামকি দেন বলেও মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে।

অভিযোগ পত্রে বলা হয়, ‘আসামিরা বাদীর সরল বিশ্বাসকে ব্যবহার করে তার পাওনা টাকা আত্মসাৎ করার লক্ষ্যে হুমকি দেয়, যা দণ্ডবিধির ৪২০/৪০৬/৫০৬ ধারায় বিচারযোগ্য অপরাধ।’

উল্লেখ্য, প্রতারণার অভিযোগে ব্রিটিশ বাংলাদেশি তারকা রন্ধনশিল্পী টমি মিয়া ও প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন আদালত। বুধবার (৯ নভেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুব আহেমদ শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।