বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

ফ্লোরিডায় এশিয়ান এক্সপোতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের নামে ডিজে পার্টি (ভিডিওসহ)

সোমবার, মার্চ ৬, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

ফ্লোরিডা, যুক্তরাষ্ট্র: দীর্ঘ বিরতির পর যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় অনুষ্ঠিত হয়েছে ২৭তম এশিয়ান এক্সপো ফুড অ্যান্ড কালচারাল ফেয়ার। ব্যাপক আগ্রহ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিরা এ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গেলেও হতাশ হয়ে ফিরতে হয়েছে তাদের। এর পেছনে রয়েছে অপসংস্কৃতির চর্চা।

জানা গেছে, শনিবার (৪ মার্চ) রাতে সাউথ ফ্লোরিডার ফেয়ার গ্রাউন্ডে শুরু হয় এ মেলা। বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ ফ্লোরিডার (বিএএফ) আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় এ এক্সপো। দিনভর সব আয়োজন ঠিক থাকলেও আপত্তি বাধে রাতের অনুষ্ঠান নিয়ে। যেখানে বিদেশি বিভিন্ন শিল্পীর অংশগ্রহণে চলে বিভিন্ন রকমের গানের অনুষ্ঠান। বিদেশি শিল্পীদের গান নিয়ে কারও অভিযোগ না থাকলেও লাইট বন্ধ করে প্রায় মধ্যরাতে ডিজে পার্টি-নাচানাচি বিব্রত করেছে অধিকাংশ প্রবাসীকে।

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী বেশ কয়েকজন প্রবাসী বাংলাদেশি বলেন, ‘আমরা অনুষ্ঠান পছন্দ করি। আর যদি বাংলাদেশি কোন সংগঠনের আয়োজন হয়, তবে তো আমরা পরিবার পরিজন নিয়ে একসাথে অংশগ্রহণের চেষ্টা করি। কিন্তু, এশিয়ান এক্সপোর এ অনুষ্ঠানে রাতের বেলা যেভাবে ডিজে পার্টি করে অশ্লিলতা ছড়ানো হয়েছে, তা সত্যি দু:খজনক।’

তারা আরো বলেন, ‘আমরা ছেলে সন্তান নিয়ে অনুষ্ঠানে গিয়েছি। পরিস্থিতি এমন হয়েছে যে, অনুষ্ঠানের মাঝখানে বেরিয়ে আসতে হয়েছে।’

প্রবাসীরা বলেন, ‘আমাদের এসব থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। সুষ্ঠু সংস্কৃতির চর্চা করতে হবে। বাংলাদেশের অনেক সুস্থ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আছে, আমারা সেসব অনুসরণ করতে পারি। এভাবে অনুষ্ঠানের নামে অশ্লিলতা আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য হুমকিস্বরূপ।’

এ দিকে, ভাঙ্গন ধরেছে বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ ফ্লোরিডায়। দীর্ঘ দিন ধরে সংগঠনটি এককভাবে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করলেও এবার হয়েছে পৃথক দুইটি অনুষ্ঠান। একটি সংগঠন মিরামার পার্কে আয়োজন করেছে ২৮তম এশিয়ান ট্রেড ফুড ফেয়ার অ্যান্ড কালচারাল শো। অন্য আরেকটি অংশ সাউথ ফ্লোরিডার ফেয়ার গ্রাউন্ডে আয়োজন করেছে ২৭তম এশিয়ান ফুড এক্সপো। আর এভাবে একই সংগঠন দুইটি ভাগে বিভক্ত হয়ে ভিন্ন ভিন্ন অনুষ্ঠান আয়োজনের পেছনে অর্থনৈতিক দ্বন্দ্ব রয়েছে কিনা, সেসব বিষয় নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। কেউ কেউ বলছেন, ‘অনুষ্ঠানের নামে ক্রেস্ট বাণিজ্য, অশ্লিলতা ছড়িয়ে অর্থ হাতিয়ে নিতে এসব অনুষ্ঠান আয়োজিত হয় কিনা সেসব বিষয় খতিয়ে দেখা দরকার।’

জানতে চাইলে বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ ফ্লোরিডার সভাপতি এম রহমান জহির বলেন, ‘অনুষ্ঠানে লাইট বন্ধ করা বা ক্রেস্ট বাণিজ্যের কোন কিছু ঘটেনি।’

তিনি বলেন, ‘আমরা বিশাল বড় একটা হলে এ অনুষ্ঠান করেছি; যেখানে লাইট বন্ধের কোন বিষয় ছিল না। গালা পার্টিতে যারা ব্যবসায়ে সফলতা অর্জন করেছেন, আমরা তাদের ক্রেস্ট দিয়েছি, ফুড এক্সপোতেও ক্রেস্ট দেয়া হবে। তবে, দুইটা ভিন্ন বিষয়।’

তিনি রাতের অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ভারতীয় সংগীত শিল্পীর পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় বলে জানান।