রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

ভ্যাট কর্তৃপক্ষের হয়রানী বন্ধ চান বিজিএমইএ চট্টগ্রামের নেতারা

বুধবার, আগস্ট ২৪, ২০২২

প্রিন্ট করুন

চট্টগ্রাম: বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুন্সীর সাথে শুক্রবার (১৯ আগস্ট) বিকালে চট্টগ্রামস্থ হোটেল রেডিসনে বৈঠক করেছেন বিজিএমইএ চট্টগ্রামের নেতৃবৃন্দ।

বিজিএমইএ এর প্রথম সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের বৈঠকে বিজিএমইএ এর সহ সভাপতি রাকিবুল আলম চৌধুরী, প্রাক্তন সহ-সভাপতি (অর্থ) মোহাম্মদ নাসির উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ও তার সরকারের দুরর্দশী নেতৃত্বে সমাপ্ত অর্থ বছরে বাংলাদেশ ৫০ বিলিয়ন রপ্তানি আয়ের মাইল ফলক অতিক্রম করেছে। কিন্তু বর্হিঃবিশ্বে জ্বালানি সংকটের কারণে দেশের জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির ফলে পোশাক শিল্পের উৎপাদন খাতে খরচ বৃদ্ধিতে রপ্তানি ব্যয় বৃদ্ধি পাচ্ছে। পক্ষান্তরে বিদেশী ক্রেতারা পোশাকের দাম বাড়াচ্ছে না।’

তাই রপ্তানির সক্ষমতা বৃদ্ধিতে আভ্যন্তরিণ খরচ কমানোর লক্ষ্যে রপ্তানির বিপরীতে সোর্স ট্যাক্স এক শতাংশ থেকে কমিয়ে শুন্য দশমিক ৫০ শতাংশ করা জরুরী বলে তিনি মন্ত্রীর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানান। বিদ্যমান অর্থনৈতিক মন্দাবস্থার মধ্যে রপ্তানি প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রাখার স্বার্থে কাস্টমস কর্তৃক সৃষ্ট এইচএস কোড বিষয়ক জটিলতা নিরসন ও ভ্যাট কর্তৃপক্ষের হয়রানী বন্ধে শতভাগ রপ্তানিমুখী পোশাক শিল্পকে সম্পূর্ণরূপে ভ্যাটের আওতামুক্ত রাখার বিষয়ে তিনি মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

টিপু মুন্সী বলেন, ‘জাতীয় আর্থ-সমাজিক উন্নয়নসহ কর্মসংস্থান ও জাতীয় রপ্তানিতে পোশাক শিল্পের গুরুত্বপূর্ণ অবদান বিবেচনায় শেখ হাসিনা কর্তৃক পোশাক শিল্পের সমস্যাগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সমাধানের নির্দেশনা রয়েছে।’

পোশাক শিল্পের সাথে কোটি মানুষের জীবন-জীবিকা সরাসরি সম্পৃক্ততার কথা উল্লেখ্য করে তিনি জাতীয় অর্থনীতির বৃহত্তর স্বার্থে সংশ্লিষ্ট সকলকে ইতিবাচক ভূমিকা পালনের আহবান জানান।

তিনি এ শিল্পে বিরাজমান সমস্যাগুলো দ্রুত সমাধানের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর গোচরীভূত করা হবে বলে বিজিএমইএ নেতাদেরকে আশ্বস্থ করেন।