মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪

শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে শাবানার বাড়িতে মিশা সওদাগর

মঙ্গলবার, জানুয়ারী ২, ২০২৪

প্রিন্ট করুন

নিউ জার্সি, যুক্তরাষ্ট্র: ঢাকাই চলচ্চিত্র অভিনেত্রী শাবানা দীর্ঘ সময় ধরে দেশের বাইরে বসবাস করেন। তবে মাঝে মাঝে দেশে আসেন। দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে যুক্তরাষ্ট্র থাকেন তিনি। আর মাঝে মাঝে মাতৃভূমি বাংলাদেশে আসলে প্রিয় মানুষ ও ইন্ডাস্ট্রির সহকর্মীদের সাথে দেখা-সাক্ষাৎ করেন এই অভিনেত্রী। যুক্তরাষ্ট্রে থাকায় তাকে খুব কমই কাছে পেয়ে থাকেন ইন্ডাস্ট্রির মানুষ। তবে, এবার ঢাকায় নয়, অভিনেত্রীর নিউ জার্সির বাড়িতে সাক্ষাৎ করলেন চলচ্চিত্রের খল-অভিনেতা মিশা সওদাগর।

সোমবার (১ জানুয়ারি) দেশের একটি সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা যায়, গেল ২৫ ডিসেম্বর পরিবারের সাথে সময় কাটাতে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছেন মিশা সওদাগর। সেখান থেকেই শাবানার নিউ জার্সির বাড়িতে গিয়েছেন মিশা। তারপর দীর্ঘ আড্ডা ও খাওয়া-দাওয়া করেন তিনি।

শাবানা ও মিশা সওদাগর দুইজনই চলচ্চিত্রের মানুষ। তাদের মধ্যে পরিচয় হয়েছে অভিনয়ের সূত্র ধরেই। তারপর পারিবারিক সম্পর্ক হয়ে উঠে তাদের। শাবানার স্বামী প্রযোজক ওয়াহিদ সাদিক খুবই স্নেহ করেন মিশা সওদাগরকে। পেশাগত ব্যাপারের বাইরে তাদের মধ্যে মাঝে মাঝে কথা হয়। শাবানা ঢাকায় আসলে তার বাসায় যেতেন খল-অভিনেতা। এবার শাবানার সাথেই দেখা করার জন্য তারই যুক্তরাষ্ট্রের বাসায় গেলেন মিশা।

মিশা সওদাগর বলেন, ‘শাবানা আপা আমার জীবনে কে, সেটা শুধু আমিই জানি। চার বছর হয় দেশে আসেন না। কথা হলেও তার সাথে দেখা হচ্ছিল না। মন চাচ্ছিল আপা-দুলাভাইয়ের সাথে দেখা করি। তাই, সুযোগটা কাজে লাগালাম। বহু দিন পর তাদের সাথে দেখা হয়ে দারুণ সময় কাটল। বাসায় আড্ডা দিয়েছি। আমি যাব বলে বহু কিছু রান্না করেছেন। নিজের হাতে খাদ্য তুলে খাইয়েছেন আপা।

মিশা জানান, খাবারের মধ্যে পোলাও, গরুর মাংস, মুরগির মাংস, রুই মাছ, ইলিশ মাছ, বেগুন ভাজি, সবজি ও ডাল ছিল। শাবানা নিজেই রান্না করেছেন। তার রান্না অতুলনীয়। বড় বোন হয়ে পরম মমতায় খাদ্য তুলে খাইয়ে দিয়েছেন।

এছাড়া আড্ডায় কী কী কথা হয়েছে, এ বিষয়ে মিশা সওদাগর বলেন, ‘আপা সাথে যখনই কথা হয়, আলোচনা হয় তা চলচ্চিত্র নিয়ে হয়। সকলের খোঁজ রাখলেন তিনি। আমাদের দেশের চলচ্চিত্র যে দেশ ও দেশের বাইরে প্রশংসিত হচ্ছে, সেসব তাকে গর্বিত করছে বলেও জানিয়েছেন।

বলে রাখা ভাল, মাত্র আট বছর বয়সে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় শাবানার। এহতেশাম পরিচালিত ‘নতুন সুর’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে শিশুশিল্পী হিসেবে নাম লেখান। তারপর ‘চকোরী’ চলচ্চিত্রে নায়িকা চরিত্রে দেখা যায় তাকে। একাধিক জনপ্রিয় চলচ্চিত্র তাকে দেখা গেলেও ১৭ বছর ধরে অভিনয় থেকে দূরে রয়েছেন তিনি। আর প্রায় ২৪ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন। স্বামী-সন্তান ও নাতি-নাতনি নিয়ে স্থায়ীভাবে থাকছেন নিউ জার্সিতে। অন্য দিকে, ১৯৮৬ সালে বিএফডিসির ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন মিশা। ছটকু আহমেদ পরিচালিত ‘চেতনা’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিষেক হয় তার। এতে নায়কের চরিত্রে অভিনয় করলেও বর্তমানে ইন্ডাস্ট্রিতে খলনায়ক হিসেবেই প্রতিষ্ঠিত তিনি।