রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

শিরোনাম

সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই

শনিবার, আগস্ট ১৩, ২০২২

প্রিন্ট করুন

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম সিটি বিএনপির আহবায়ক শাহাদাত হোসেন বলেছেন, ‘বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে পুনর্গঠন কমিটির নেতাদের নিয়ে চট্টগ্রাম সিটি বিএনপির ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে তৃণমূল পর্যায়ের ইউনিট সম্মেলন শুরু করেছি। আগামী এক মাসের মধ্যে পুনর্গঠন কমিটির নেতাদেরকে দায়িত্বপ্রাপ্ত থানা গুলোর সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডে সম্মেলনের মাধ্যমে নিরপেক্ষভাবে প্রতিটি ইউনিট কমিটি সম্পন্ন করতে হবে। চট্টগ্রাম সিটি বিএনপি প্রতিটি ইউনিট সম্মেলনে পুনর্গঠন কমিটির নেতাদের সার্বিক সহযোগিতা করবে, যেন দ্রুত সময়ে সম্মেলনের কাজ শেষ করতে পারে।’

শনিবার (১৩ আগস্ট) বিকালে সিটির ১৭ নম্বর পশ্চিম বাকলিয়া ‘এ’ ইউনিটের সম্মেলনে প্রথম অধিবেশনে তিনি এসব কথা বলেন।

এতে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শাহাদাত হোসেন আরো বলেন, ‘ব্যর্থতার দায় নিয়ে অচিরেই পদত্যাগ করুন। জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাসের সমস্যা, দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধিসহ সবকিছুর মূল্য বৃদ্ধির কারণে জনগণের অবস্থা অত্যন্ত অমানবিক। বিএনপির জনগণের দল হিসেবে জনগণের সমস্যা নিয়ে সব সময় রাজপথে ছিল। এ স্বৈরাচারী সরকার জনগণের ভোটাধিকার হরণ করে জগদ্দল পাথরের মত গায়ের জোরে দেশ শাসন করছে।’

তিনি দ্রুত সব ব্যর্থতার দায়ী স্বীকার করে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নির্বাচনের জোর দাবি জানান।

প্রধান বক্তার বক্তব্য চট্টগ্রাম সিটি বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাসান বক্কর বলেন, ‘এ সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই। গায়ের জোরে টিকে থাকতে চায়। জনগণ ক্ষেপে উঠেছে। সবকিছুই আজ ঊর্ধ্বগতি। বেসামাল এ সরকারের পদত্যাগে আপনাদেরকে রাজপথে নামতে হবে। আজ ১৭ নম্বর পশ্চিম বাকলিয়া ইউনিটের সম্মেলনের মাধ্যমে আমরা অচিরেই চট্টগ্রাম সিটির ৪৩টি ওয়ার্ডের ইউনিট কমিটির সম্মেলনের কাজ সম্পন্ন করব। পুনর্গঠন কমিটির নেতাদের এ ইউনিট সম্মেলনগুলো তৃণমূলের ভোটের মাধ্যমে ও নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালন করার জন্য আহবান জানাচ্ছি।’

বাদে মাগরিব দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু করেন পুনর্গঠন কমিটির নেতারা। চট্টগ্রাম সিটির বিএনপির সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক ও কোতোয়ালী-বাকলিয়া-চকবাজার পুনর্গঠন কমিটির টিম প্রধান এমএ আজিজের সভাপতিতে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক ও পুনর্গঠন টিমের সদস্য মোহাম্মদ আব্দুল হালিম শাহ আলম, নগর বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য গাজী মোহাম্মদ সিরাজুল্লাহ, পুনর্গঠন কমিটির সদস্য মাইমুনুল ইসলাম হুমায়ুন, আব্দুস সাত্তার সেলিম, মনোয়ারা বেগম মানি।

উপস্থিত ছিলেন বাকলিয়া থানা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি এমআই চৌধুরী মামুন, নগর বিএনপি নেতা ইব্রাহিম বাচ্চু, খোরশেদ আলম, ইসমাইল বাবুল, ১৭ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. সেকেন্দার, নগর যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক এমদাদুল হক বাদশা, ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাজী ইমরান উদ্দিন, ছৈয়দুল আমিন, গুলজার হোসেন লেদু, আরিফুল ইসলাম ডিউক, নগর যুবদল নেতা নাসির উদ্দিন চৌধুরী নাসিম, ওয়ার্ড বিএনপি নেতা মো. খোরশেদ আলম, জমির উদ্দিন বাবলু, মোহাম্মদ শাজাহান, মোহাম্মদ শফিকুর রহমান, জাফর ইকবাল, মোহাম্মদ হোসেন, আব্দুল হালিম, মো. আলমগীর, সামাদ কন্টাকটার, যুবদল নেতা মোহাম্মদ মিন্টু, আসাদুর রহমান টিপু, ইসমাইল হোসেন লেদু, ছাত্রদল নেতা মো. জাহাঙ্গীর, মো. রাশেদ।

এমএ আজিজ বলেন, ‘বাকলিয়া-কোতোয়ালি -চকবাজার থানার সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড়ের ইউনিট কমিটি অচিরেই আমরা সমাপ্ত করব। আজ ১৭ নম্বর পশ্চিম বাকলিয়া ইউনিট সম্মেলনের মাধ্যমে ২১ সদস্য বিশিষ্ট ইউনিট কমিটির ঘোষণা করছি। ‘এ’ ইউনিটের সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন মোহাম্মদ জাফর ইকবাল, সাধারণ সম্পাদক মো. ওসমান গনি, সিনিয়র সহ-সভাপতি আমির হোসেন, সিনিয়র যুগ্ন সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শামসুল হক।