বৃহস্পতিবার, ০১ জুন ২০২৩

শিরোনাম

সাগরে লঘুচাপ: হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে

রবিবার, অক্টোবর ২, ২০২২

প্রিন্ট করুন

ঢাকা: উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং এর কাছাকাছি মধ্য-বঙ্গোপসাগর এলাকায় লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় ও উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি অবস্থায় রয়েছে। এর প্রভাবে দেশের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়া ও বিজলি চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরণের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে । সেইসাথে কোথাও কোথাও মাঝারি ধরণের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে। পরবর্তী তিন দিনে সারা দেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

রোববার (২ অক্টোবর) সকাল থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ‘রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়া ও বিজলি চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরণের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে । সেইসাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরণের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।’

রোববার সকাল ছযটা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় শ্রীমঙ্গলে সর্বোচ্চ ৫০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়াও চাঁদপুরে ৪৩, কুতুবদিয়ায় ৩৮,মাইজদীকোর্টে ৩২, ফেনী ৩১ ও কুমিল্লায় ২৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ সময় ঢাকায় মাত্র দুই মিলিমিটার বৃষ্টি হয় বলে আবহাওয়া অফিস জানায়।

সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা এক থেকে তিন ডিগ্রি সেলসিয়াস ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে ।

রোববার তাড়াশ ও সৈয়দপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ দশমিক পাঁচ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও কুমারখালীতে সর্বনিম্ন ২১ দশমিক শুন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এ সময় ঢাকায় সর্বোচ্চ ৩৪ দশমিক চার ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ।

পূর্বাভাসে আরো বলা হয়েছে, ‘মৌসুমী বায়ুর অক্ষ পূর্ব উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় ও উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।’

ঢাকায় রোববার দক্ষিণ-পূর্ব অথবা দক্ষিণ দিক থেকে ঘন্টায় দশ থেকে ১৫ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হচ্ছে, যা অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়া আকারে ২৫ থেকে ৩০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়তে পারে । সকালে ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৮৭ শতাংশ।

ঢাকায় রোববার সূর্যাস্ত সন্ধ্যা পাঁচ টা ৪৫ মিনিটে ও সোমবার সূর্যোদয় ভোর পাঁচটা ৫১ মিনিটে।