বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শিরোনাম

সীমান্ত হত্যার দায় শেখ হাসিনা এড়াতে পারেন না

মঙ্গলবার, অক্টোবর ১১, ২০২২

প্রিন্ট করুন

ঢাকা: সীমান্ত হত্যার দায় প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনা এড়াতে পারেন না বলে মত প্রকাশ করেছেন নাগরিক পরিষদের আহবায়ক মোহাম্মদ শামসুদ্দীন।

রোববার (৯ অক্টোবর) গণ মাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে তিনি সাতক্ষীরা সীমান্তে হাসানুর রহমান (২৫) ও চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে মুনতাজ হোসেন (৪০) নামে দুই বাংলাদেশীকে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষি বাহিনী বিএসএফ কর্তৃক হত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। মোহাম্মদ শামসুদ্দীন স্বাধীনতার পর থেকে এ পর্যন্ত যতজন বাংলাদেশী নাগরিককে বিএসএফ হত্যা করেছে তার শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি জানান।

তিনি বলেন, ‘একাত্তরের প্রতিদানে আর কত রক্ত নিবে ভারত। চীন-মায়ানমার-নেপাল-ভুটান-পাকিস্তান সীমান্তে তারা সাহস না পেলেও বাংলাদেশ সীমান্তে অহরহ বিনা বিচারে বাংলাদেশী নাগরিক হত্যা করছে ভারত। সার্বভৌমত্ব লংঘন করছে প্রায়ই। কিন্তু দিল্লীর অনুগত সরকার ও রাজনৈতিক দলগুলো নিশ্চুপ। বুদ্ধিজীবী ও গণ মাধ্যম রহস্যজনক কারণে নিশ্চুপ। দেশের নাগরিকদের বিনা বিচারে হত্যা করছে- এর দায় শেখ হাসিনা এড়াতে পারেন না। নাগরিকদের জানমাল রক্ষার ব্যর্থতার দায় সরকারকে বহন করতে হবে।’

মোহাম্মদ শামসুদ্দীন আরো বলেন, ‘স্বামী-স্ত্রী কিংবা রক্তের সম্পর্ক কখনো জীবনঘাতি হয় না। এ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রী কেমন স্বামী-স্ত্রী কিংবা রক্তের সম্পর্ক পেতেছেন যে, নিরস্ত্র নিরীহ সাধারণ নাগরিকদের ওরা হত্যা করে, যখম করে, লাশ নিয়ে যায়?’

তিনি বলেন, ‘ফেলানী হত্যার বিচার বাংলাদেশ পায় নি বলে প্রতিনিয়ত বাংলাদেশী নাগরিক হত্যা করছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষি বাহিনী বিএসএফ।

দ্রুত ফেলানীসহ সব বাংলাদেশী নাগরিক হত্যার জন্য আন্তর্জাতিক মহলে সরকারকে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানান শামসুদ্দীন।