মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪

শিরোনাম

স্মার্ট পরিবারে মাল্টিফাংশনাল মাইক্রোওয়েভ

সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

লাইফস্টাইল প্রতিবেদক: প্রযুক্তির বিকাশের সাথে সাথে মানুষের প্রয়োজনের ধরন বদলেছে। এখন মানুষ একই হোম অ্যাপ্লায়েন্সের বহুবিধ ব্যবহার করতে চায়। কেবলমাত্র একটি বিশেষ কাজে আসবে- এমন অ্যাপ্লায়েন্স এখন আর মানুষ কিনতে চায় না। তার ওপর মানুষের লাইফস্টাইলেও অনেক বেশি ব্যস্ততা চলে এসেছে। তাই, এখনকার মিলেনিয়াল প্রজন্ম রান্নাঘরের প্রয়োজনীয় অ্যাপ্লায়েন্স কেনার ক্ষেত্রে অ্যাপ্লায়েন্সটি মাল্টিফাংশনাল কী না, এ বিষয়টিতেই প্রাধান্য দিয়ে থাকেন।

রান্নাঘরে কার্যকরী অ্যাপ্লায়েন্স ব্যবহার করে ঘরে বাড়তি কিছু সুবিধা আনা যায়। আর যারা খুব কম সময়ের মধ্যে অনেকগুলো রান্না সেরে ফেলতে চান, তাদের জন্য তো কথাই নেই! স্যামসাংয়ের মাইক্রোওয়েভ ওভেনের ইদানিংকালের মডেলগুলোতে স্টিম ও গ্রিল, এমনকি ফ্রাই পর্যন্ত করা যায়। পাশাপাশি, নান্দনিক ডিজাইনের কারণে যে কোন কাউন্টারটপ স্পেসের শোভা বহুগুণ বাড়িয়ে তুলবে- এই মাল্টিফাংশনাল কিচেন অ্যাপ্লায়েন্স।

মাইক্রোওয়েভ ও কনভেকশন ফাংশনের সমন্বয়ে ব্যবহারকারীরা এই ওভেনে খাবার গ্রিল করতে পারবেন। এর পাওয়ারগ্রিল ডুও ফাংশনালিটির কারনে এক দিকে যে কেউ খাবার দ্রুত গ্রিল করতে পারবেন, অন্য দিকে এর উদ্ভাবনী ও বিস্তৃত গ্রিল হিটার সামঞ্জস্যপূর্ণভাবে তাপ বিতরণ নিশ্চিত করবে। অ্যাপ্লায়েন্সটিতে একটি তিন স্তর বিশিষ্ট স্টেইনলেস স্টিমার রয়েছে, যা ভেতরের আর্দ্রতা বজায় রেখে খাবারের শুকিয়ে যাওয়া রোধ করবে। সবজি স্টিম করা ও মাংস গ্রিল করার ক্ষেত্রে এই অ্যাপ্লায়েন্সটি একদমই যথার্থ হবে।

আধুনিক লাইফস্টাইলের অপরিহার্য অনুষঙ্গ হয়ে উঠেছে ফ্রাইয়ের নানা রকম আইটেম। এতে ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, নাগেটের মত খাবার কম তেল ব্যবহার করে প্রস্তুত করতে স্লিমফ্রাই অপশন রয়েছে। ডিপ ফ্রাই করা প্রয়োজন, আবার ক্রিস্পি টেক্সচারও রাখা দরকার- এমন সব ফ্রোজেন খাবার এই ওভেনে রান্না করা যাবে। অ্যাপ্লায়েন্সের সাথে থাকা ক্রাস্টি প্লেটে প্রবাহিত হট এয়ার এক দিকে খাবারের বাইরের অংশকে ক্রিস্পি রাখবে, অন্য দিকে ভেতরের অংশকে জুসি করে তুলবে। মাইক্রোওয়েভ ও কনভেকশনের সমন্বিত ব্যবহারের কারণে এটি সাধারণ এয়ার ফ্রায়ারের তুলনায় রান্নার সময় বাঁচায় ৫০ শতাংশ পর্যন্ত, আর এ কারণে সাশ্রয় হবে বিদ্যুতেরও।

অ্যাপ্লায়েন্সটির আরেকটি উল্লেখযোগ্য ফিচার হচ্ছে- এর হটব্লাস্ট টেকনোলোজি। এই হটব্লাস্ট টেকনোলোজির কারণে কনভেকশন ওভেনের ভেতরে থাকা অসংখ্য এয়ার হোল দিয়ে সরাসরি খাবারের ওপর হট এয়ার প্রবাহিত হয়। আর এই কারণে খাবারটি চারপাশ থেকে সমানভাবে প্রস্তুত হয়; বাইরের দিকে ক্রিস্প হয়ে ওঠে আর ভেতরে জুসি থাকে। মাংস, সি-ফুড, আলু দিয়ে তৈরি বিভিন্ন পদ, ফ্রাইড চিকেন, পারমিসান চিকেন কাটলেট, চিকেন কার্ডেন ব্লিউ, ওয়েজেস, ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, ব্রিডেড শ্রিম্প ও ক্যালামারির মত রান্নায় এই ধরনের ফিচার খুব কার্যকর হবে।

অ্যাপ্লায়েন্সটির অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের মধ্যে রয়েছে- রান্না ও ডিফ্রস্ট করার সময় সঠিকভাবে নির্ধারণ করতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ওজন মেপে নেয়া। ডিভাইসটি সব দিকে সমানভাবে রান্না করার ক্ষেত্রে ডিশ ঘুরিয়ে দিতে বিপ নোটিফিকেশন দিয়ে জানান দিবে। অ্যাপ্লায়েন্সটির সুবিধা হচ্ছে এটি ব্যবহারের সময় খুব বেশি আওয়াজ হয় না, আর এর চারপাশ খুব বেশি গরমও হয় না। সবচেয়ে সেরা অংশ হচ্ছে ওভেনের অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল প্রোটেকশনসহ সিরামিক এনামেল ইন্টেরিওর ডিজাইন, যা পরিস্কার করা খুবই সহজ।

আধুনিক পরিবার বিশেষ করে মিলেনিয়াল প্রজন্মের মানুষের জন্য এই স্মার্ট ও মাল্টিপারপাস অ্যাপ্লায়েন্সটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। হটব্লাস্ট টেকনোলোজি সমৃদ্ধ স্যামসাং কনভেকশন মাইক্রোওয়েভ ওভেন যে কোন বাড়ি বা কর্মক্ষেত্রে টেক্সচার ঠিক রেখে খাবার গরম করার ক্ষেত্রে একদম আদর্শ অ্যাপ্লায়েন্স।